তুমি যেও না দামিনী: ভ্যালেন্টাইনস ডে - তারক ঘোষ | Valentine's Day Bengali Feature by Tarak Ghosh (WBRi Bengali Online Magazine)

Tarak Ghosh

A special feature on Valentine's day by Tarak Ghosh of Kolkata in unicode Bangla font published in WBRi Bengali Online Magazine section. Tarak is a writer and a journalist, managing editor of NEWS3, and former journalist for the Bartaman, the Telegraph and other dailies and journals.

Pictures by Jaya Bandopadhyay. Jaya is a former Journalist of CVP television & news agency CTVN plus, Sristi and M9 Bengali Channel. Photography is her hobby.

You can send your creative writing to submissions@washingtonbanglaradio.com for consideration towards publication.

তুমি যেও না দামিনী ... তাকাও আমাদের দিকে ... দেখো, প্রেম আছে ... দিগন্তভরা প্রেম ... আলোয় ভরা প্রেম ... বেঁচে থাকার প্রেম ... তুমি আমাদের ক্ষমা করে যাও ...

"ভ্যালেন্টাইনস ডে" নিয়ে তারক ঘোষের   বিশেষ রচনা, ছবি -  জয়া বন্দ্যোপাধ্যায়


Bengali Valentine's Day in Kolkata

চারিদিকে আজ রামধণূর আলোকছ্বটা।দেশের সীমানা থেকে শহরের প্রান্তসীমা,সবুজ গ্রামের মায়াময় শ্যামলতা থেকে মরুর হলুদ ধূসরতায়।জঙ্গলের আদিমতা থেকে পাহাড়ের বিশালতায়। এ যেন হারিয়ে যাওয়া রূপকথার সেই অচিন ভূবন। ঝলমলে দোকানে রঙীন উপহারের ইশারা।গহনার দোকানে সোনা,হীরের সগর্ব উপস্থিতি।শহরের সারি সারি নিওন আলোর আবির গায়ে মেখে চিৎকার করে আজ বলতে ইচ্ছে করে… এ সব তোমারই জন্য। তোমার জন্য এই আলো,তোমার জন্য এই বাতাস,তোমার জন্য এই উপহার।আজ যে প্রেমের দিন…প্রেমকে চিনে নেওয়ার দিন,প্রেমকে ছড়িয়ে দেওয়ার দিন………..আজ  যে ভ্যালেন্টাইনস ডে।বলতে ইচ্ছে করে শহরের পার্কে নিভে আসা আলোয় আর সিনেমা হলের নীল অন্ধকারে প্রেম কি খুঁজে পায় জীবনের রহস্যঘেরা  প্রথম পরিচ্ছেদ, যেখানে আজও কোন প্রেমিকের কন্ঠ থেকে ঝরে পড়ে সেই গান….”আমি এতো যে তোমায় ভালোবেসেছি….তবু মনে হয় এ যেন…”

Bengali Valentine's Day in Kolkata

প্রেমের মৃত্যু নেই,নেই জড়া,নেই স্থবিরতা।প্রেম চিরপ্রবহমান।কখনো গঙ্গার মতো,কখনো বা ফল্গুর মতো- সবার অলক্ষ্যে বয়ে যায় নীরবে। যার জন্য প্রেম সেও জানতে পারেনা… কবে এসেছিল……..কখনই বা হারিয়ে গেল,হয়ত কোন শ্রাবন সন্ধ্যায় কিংবা কোন ফাগুনের বাউল বিকালে।

প্রেম কি সেই যাদুকর যে ভুলিয়ে দিতে পারে সব কষ্ট,সব দুঃখ,কিছু না পাওয়ার বেদনা ভুলিয়ে দিয়ে প্রাণে তুলে দিতে পারে বেঁচে থাকার এক অদম্য আশ্বাস! হয়ত তাই।তার হাতের ছোঁয়ায় তাই কেটে যায় দিন যাপনের অনন্ত ক্লান্তি, কেটে যায় জীবনের কষ্টকর পথচলা।মনে পড়ে কোন সুদূর অতীতে লুকোচুরি খেলার সময় এক বালিকা আমার দিকে তাকিয়ে বলে উঠেছিল…..তুমি আমাকে একটুও ভালোবাসনা।।জীবন প্রবাহে সে সব আজ অতীত।তবু আজও মনের কোন অদৃশ্য পর্দায় ভেসে থাকে তার সেই জলভরা চোখ…সেই চোখে দা্রুচিনি দ্বীপের অন্তহীন ইশারা।

Bengali Valentine's Day in Kolkata

জীবন থেমে থাকেনা।এখানে কৈশোর আসে,আসে যৌবন,আসে প্রৌঢ়ত্ব….কিন্তু,.প্রেম চিরযৌবনের প্রতীক।বার্ধ্যক্যের বারাণসীতেও প্রেম হানা দেয় বারে বারে।পুরুলিয়ার এক গ্রামে দেখেছিলাম তাকে।আকাশে সেদিন চাঁদের বাঁধভাঙ্গা বন্যা।বাতাসে কি এক মাতাল করা মহুয়ার গন্ধ।রাতের নির্জনতায় জোনাকীর নিওন আলো।পলাশ আর শিমূলের লাল আগুনের নেশা তখন চাদের রূপালী তবকে ঢাকা।একটু দূরেই দাঁড়িয়ে ছিল সে।কালো পাথরে কোঁদা শরীরে প্রাণের গীতিকবিতা।চোখের তারায় অরণ্যের আদিম ইশারা।হাতে একটা পলাশের ডাল।ইলোরার পাথর সেদিন যেন ইন্দ্রপুরীর মোহময়ী।

হাল্কা অন্ধকারে দাঁড়িয়ে এক সাঁওতাল যুবক।পায়ে পায়ে যুবকের কাছে যায় সেই নারী।তারপর তার হাতে সলজ্জ ভঙ্গীতে তুলে দেয় সেই পলাশের ডাল। তারপর একছুটে অন্ধকারে।পাহাড়ের সেই আদিমতা থেকে বহুদূরের শহরে সেদিন বাজছিল প্রেম দিবসের গান।

চারিদিকে আজ ভালোবাসার ছড়াছড়ি। রাস্তাঘাটে,কলেজে,পার্কে কিংবা সিনেমাহলের নীল নির্জনে।দোকানে দোকানে ভালোবাসার প্রতীক হিসাবে উপহারের ছড়াছড়ি।কিনে প্রেমিক কিংবা প্রেমিকার হাতে ধরিয়ে দিলেই কেল্লাফতে।ভালোবাসা প্রমানিত।কিন্তু কখনো কখনো সুর কেটে যায়,ছন্দ যায় ভেঙ্গে।

না, বদলায় না ভালোবাসা,শুধু বদলে যায় ভালোবাসার পাত্র কিংবা পাত্রী।সময় আর পার্কের খাতায় শুধু লেখা থাকে তাদের অপ্রকাশিত কবিতা। তারপর হারিয়ে যাওয়া নতুন ভ্যালেন্টাইনস ডে তে।

প্রেম দিবসের রঙীন পটভূমি থেকে মাঝে মাঝে মন চলে যায় সেই অনন্ত অন্ধকারের দিকে। এক আলোকময় অন্ধকারের রাত, ছুটে চলা নারীর কন্ঠে বেঁচে থাকার উন্মাদ চিৎকার।মানবতাহীন মানুষের মাঝে এক নারী….যে প্রেমিকা নয়, যে কন্যা নয়, যে নয় একটা মানুষও। সে যেন ক্ষুধাতুর পশুদের মাঝে মাংসের একটা টুকরোমাত্র।প্রেম দিবসের গান ছাপিয়ে,শহরের পার্কের ভীড় এড়িয়ে, আজও মন যেন চলে যায় তার কাছে…..তার অসার হয়ে যাওয়া পা দুটো ধরে বলতে ইচ্ছে করে…তুমি যেও না দামিনী…. তাকাও আমাদের দিকে …দেখো, প্রেম আছে…দিগন্তভরা প্রেম…আলোয় ভরা প্রেম…বেঁচে থাকার প্রেম…..তুমি আমাদের ক্ষমা করে যাও। কেউ কথা বলেনা। রাত্রীর অন্ধকারে শুধুই মানবতার কান্না।পড়ে থাকে ভ্যালেন্টাইন্স ডে। পড়ে থাকে এক অনন্ত জিজ্ঞাসা।