জানুয়ারি - রঙ্গীত মিত্র


নাম বিশেষের পিছন পিছন ঘোরালো রং-এর গাড়ি।
তার জিপসি রং-এর রাত ;
যেরকম রাতের মালগাড়ি
শহর কাঁপিয়ে আসে।
জামার মতো কিছু
তখন জীবন-আবরক।
তোমার আঙুল ধরে
জেব্রা-ক্রসিং-এ,জানুয়ারি মাস লেখে। 



Rangeet Mitra, Bengali poet, was born in 1985. He is a chemical engineer and lives in Kolkata. Hopnig to build and live in an open society without discrimination he dreams on. His first book of poems (“Rumale  Beerer Gandho” ) was published in Calcutta Book fair, 2012 by Abhijan Publishers,Kolkata.



রঙ্গীত মিত্র আপতত পেশায় মুচি। আমার নতুন নতুন মানুষের সাথ আলাপ  করতে ইচ্ছে করে।যা নিয়ম তার উলটোটা করি। সবার উপকার করতে গিয়ে ল্যাদ খেয়েছিও অনেকদিন।তাও উপকার আমার বার্থরাইট।এবং বার্থডে ঃ ফোর্থ মে ১৯৮৫। প্রিয় শহর ঃ কলকাতা। প্রিয় রং কি সেটা এখনো বুঝে উঠতে পারিনি।তবে ব্যাকডোর ব্যাপারটা দেখলে ঝাঁট জ্বলে গেলেও আমি একটা আতা বলে,হর হর করে বলে ফেলি।  তবে আমার বাবা মা আমার প্রতি খুব বিরক্ত।আমি কোথাও স্থির হয়ে থাকতে পারিনা।এই অস্থিরতা আমাকে অ্যান-স্টেবেল করেছে বলে ফেসবুকই করি। যেকনো দিন-ই কাউন্সিলিং করতে যেতে হবে।কারণ আমাকে বিক্রি করতে হবে , না হলে যে পেটে খাওয়ার জুটবে না।কিন্তু আমার মনে হয় আমার লেখা কেউ পড়েনা। সব সময় হতাশায় ভুগি আর লোকজন হেবি হিংসুটে...আমারই সব খারাপ হয় বলে ভেবেছি সন্যাস নেবো। আসলে ঈশ্বরের প্রতি বিশ্বাস বেশ আছে আমার। আমার যেমন পিটসিগারের গান ভালো লাগে সেরকম-ই যাদবপুর। তবে নাকি আশ্চর্য্যভাবে দেখি খারাপেরাই ক্ষমতা দখল  করে । কিন্তু আমার বাড়ির লোক হেবি ব্যাক ডেটেট।আর আমি এই বুড়োবয়সে পড়তে এসে দেখছি,আমার মতো পাগোল খুব কম।আর বাকী সব মুখোশ পরে আছে। উফ আপনি বল্লেন,"এখানে তো অভিযোগই লেখা।" আসলে হিসু করতে গিয়ে যখন দেখি পকেটে এক টাকা নিয়ে কিম্বা ওষুধের দোকান থেকে কন্ডোম কিনতে ভয় করে...জানি না আমি বোধহয় খুব পিছিয়ে পড়ছি।অথচ আমার যেন মনে হয় আমারা " সব আছে কিন্তু কিছু নেই"-এর জগতে "নাক-খুঁটছি"।তবে আমার খুব ভয় করে।হেরে যাবো না তো? এইবার জানাই একটা চাকরি দরকার।আমি ভাবি আমি সব-ই পারি।কিন্তু আমাকে কেউ চাকরি দেয় না।আমার বই-এর মত অভিজ্ঞতা ডাঁই হয়ে পড়ে আছে।আর স্বপ্নের মাথার চড়ক গাছ থেকে হাচের টাওয়ার স্তনের থেকেও বড় ব্ল্যাকবেরি... অ্যাস্ট্রোলজার বলেই দিয়েছে বদলের খুব প্রয়োজন...যাতে আমি বেঁচে থাকতে পারি...সেই কেমিক্যাল ইঞ্জিনীয়ারিং থেকে বেরিয়ে দেখি তোমার মাথার হেয়ার ব্যান্ডটা হীরে হয়ে গেছে...আর আমার কবিতার বই , "রুমালে বিয়ারের গন্ধ" নিয়ে কলকাতা বইমেলা...ঐ তো আমাকে ডাকছে শব্দরা।আমাকে যেতে দাও,প্লিজ।