Review - Magazine Periodical Journal

SHUNYAKAAL Bengali Online Magazine 2nd Issue Published

ওয়েব ম্যাগাজিন শূন্যকাল-এর দ্বিতীয় সংখ্যা প্রকাশিত হলো।
ওপরের সাইট লিংক এ ক্লিক করুন।



Papyrus Bengali Online Magazine Boisakh 1420 Issue Published

ইন্দিরা মুখার্জি


Papyrus Bengali Online Magazine

দোলের রং অবশেষে ছড়িয়ে পড়ল ফেসবুক থেকে প্যাপিরাসের পাতায় । প্রকাশিত হল প্যাপিরাসের পয়লা বৈশাখ ২০১৩ সংখ্যা । বন্ধুরা চোখ রেখো কিন্তু । এবারে আছে অনেক চমক । নিয়মিত বিভাগ "চক্রবৈঠকে" আছে তোমাদের সাথে আলাপচারিতা। শুরু হল নতুন ধারাবাহিক । আর র‌ইল নানান স্বাদের একগুচ্ছ প্রেমের অণুগল্প এবং তিনটি সুন্দর ছোটগল্প ।   তোমাদের ভালোলাগার মত একটি নিবন্ধ "রবিঠাকুরের ভ্যালেন্টাইনরা" র‌ইল সাথে । নিয়মিত বিভাগ "স্মৃতিকণা"তো আছেই । আর? এবারের চমক হল আমাদের গুণী বন্ধুদের আঁকা সব অলংকরণ । রঙে রঙে মাত করেছে বন্ধুরা । সমৃদ্ধ হয়েছে অনেক চিত্রশিল্পীর অঙ্কনশৈলীতে ।

কেমন লাগল জানিও কিন্তু প্যাপিরাসের পাতায় । সকলের জন্য প্যাপিরাসের পক্ষ থেকে দোলের শুভেচ্ছা!

http://papyrus.sonartoree.com/

আশাকরি ভালো লাগবে ।

Indira Mukhopadhyay (Editor)
Prithwis Mukhopadhyay ( Technical Support)



জয়ঢাক বসন্ত ২০১৩ সংখ্যা বের হল | Joydhak Children's Online Bengali Magazine Spring 2013 Issue Published


Joydhak Bengali Online Children's Magazineসুধি,                                                                                                                                                                                                                      
বের হল ২০১৩ সালের বসন্তসংখ্যার জয়ঢাক। www.joydhak.com
আগামি জয়ঢাক বসন্ত ২০১৩দোল ও বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা জানবেন।


জয়ঢাক বর্ষা ২০১২ সংখ্যা বের হলো

এসে গেল নতুন জয়ঢাক। পড়ুন, পড়ান ও আনন্দ পান।

জয়ঢাক বর্ষা ২০১২


Online Bangla Magazine Papyrus Publishes Poila Baishakh 2012 Sankhya (Bengali New Year Issue)

Papyrus Bangla Online Magazine

The editorial team of Bengali web-zine Papyrus have announced the publication of Pohela Baishakh 2012 Issue. The following is a note from the editors Indira Mukherjee and Prithwish Mukherjee of Papyrus in unicode-Bangla about the Bangla e-zine.


সোনারতরী আমার স্বপ্নের নৌকাখানি । সেই ২০০৮ এর ফাল্গুনে প্রেমে পড়ে গেছিলাম সোনারতরীর ।

তারপর থেকে  কখনো সে বুঝে নিয়েছে আমার মুড সুইং, মেপেছে আমার মনের হাংরি টাইড; হ্যালুসিনেটেড হাইওয়ের ধারে দাঁড়িয়ে সঁপে দিয়েছি নিজেকে তার কাছে  । সেই থেকে  তার হাতদুটো ধরে এগিয়ে চলেছি ছেঁড়া ছেঁড়া কবিতায়, অলস ভাবনার গদ্যে ।

সময়ের হাত ধরে চার বছর চলার পর অনেকে সোনারতরীর ডিঙি নৌকাখানিতে তুলে দিয়েছে তাদের কলম, খুলে দিয়েছে ভাবনার খোলাখাতা ।


Syndicate content